৭ জন বীরশ্রেষ্ঠের নাম ও পরিচয় | ৭ জন বীরশ্রেষ্ঠের নামের তালিকা

12 Aug, 2023

৭ জন বীরশ্রেষ্ঠের নাম ও পরিচয় | ৭ জন বীরশ্রেষ্ঠের নামের তালিকা

  • বীরশ্রেষ্ঠদের সংক্ষিপ্ত পরিচয় দাও
  • ৭জন বীরশ্রেষ্ঠদের পরিচয় দাও ।

উত্তর : ভূমিকা : বাংলাদেশ বিশ্বের স্বাধীন দেশ হিসেবে আজ পরিচিত। এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়। এই স্বাধীনতা যুদ্ধে বীরশ্রেষ্ঠদের অবদান অনেক। বীরশ্রেষ্ঠরা তাদের সাহসিকতা ও আত্মত্যাগের জন্য বাঙালি জাতির কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন।

পাকিস্তানিদের অত্যাচারের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত জবাব ছিল ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ নামের স্বাধীনতা দেশে অভ্যুদয় ঘটে।

→ বীরশ্রেষ্ঠদের পরিচিতি : বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা অসামান্য অবদান রেখেছেন তাদের বীরশ্রেষ্ঠ বলা হয়। নিম্নে বীরশ্রেষ্ঠদের পরিচিতি তুলে ধরা হলো :

১. স্কোয়াড্রন লিভার রুহুল আমিন : রুহুল আমিন ১৯৩৫ -সালে নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি থানার দেওটির বাগপাচড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মোঃ আজহার পাঠোয়ারি ও মাতার নাম মোছা জুলেখা খাতুন। তাঁর কর্মস্থল ছিল নৌবাহিনী। তাঁর পদবি হলো স্কোয়াড্রন ইঞ্জিনিয়ার। মুক্তিযুদ্ধে ১০নং সেক্টরে অংশগ্রহণ করেন । ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর মৃত্যুবরণ করেন ।

২. ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখ : নূর মোহাম্মদ শেখ ১৯৩৬ সালে ২৬ ফেব্রুয়ারি নড়াইল জেলার মহেষখোলা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মোঃ আমানত শেখ ও মাতার নাম মোসাম্মাৎ জেন্নাতুন্নেসা খানম। ১৯৫৯ সালে ই. পি আরএ যোগদান করেন। তাঁর পদবি ল্যান্স নায়েক। তিনি ৮নং সেক্টরে যুদ্ধরত ছিলেন। ১৯৭১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে মৃত্যুবরণ করেন ।

৩. মতিউর রহমান : মতিউর রহমান ১৯৪১ সালের ২৯ অক্টোবর নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার রামনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম আবদুস সামাদ ও মাতার নাম সৈয়দ মোবারকুন্নেসা খাতুন। তাঁর কর্মস্থল ছিল বিমানবাহিনীতে। তাঁর পদবি ছিল লেফটেন্যান্ট । ১৯৭১ সালের ২০ আগস্ট মতিউর মৃত্যুবরণ করেন ।

৪. মুন্সী আব্দুর রউফ : মুন্সী আব্দুর রউফ ১৯৪৩ সালের ১ মে ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার সালামতপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন । তাঁর পিতার নাম মুন্সী মেহেদী হাসান ও মাতার নাম মোসাম্মৎ মুকিতুন্নেছা। মুন্সী আব্দুর রউফ ১৯৬৩ সালের ৮ মে ই. পি. আরএ যোগদান করেন। তিনি ১নং সেক্টরে যুদ্ধ করেন। ১৯৭১ সালের ২০ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন ।

See also  ১৯৭০ সালের নির্বাচনের ফলাফল আলোচনা কর

৫. মোস্তফা কামাল : সিপাহি মোস্তফা কামাল ১৯৪৭ সালের ১৫ ডিসেম্বর ভোলা জেলায় দৌলতখান থানার পশ্চিম হাজীপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম হাবিবুর রহমান মণ্ডল ও মাতার নাম মোসাম্মাৎ মালেকা বেগম। তিনি ২নং সেক্টরে যুদ্ধ করেন । মোস্তফা কামাল ১৯৭১ সালে ১৮ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন।

৬. মুহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর : ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ১৯৪৯ সালে বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানার রহিমগঞ্জ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন । তাঁর পিতার নাম আবদুল মোতলেব হাওলাদার ও মাতার নাম মোসাম্মৎ সাফিয়া বেগম। তিনি ১৯৫৭ সালে সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। ৭নং সেক্টরে তিনি যুদ্ধ করেন । ১৯৭১ সালে ১৪ ডিসেম্বর মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর মৃত্যুবরণ করেন ।

৭. সিপাহি হামিদুর রহমান : সিপাহি হামিদুর রহমান ১৯৫৩ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার খোরদা খালিশপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম আক্কাস আলী মণ্ডল ও মাতার নাম কায়দাছুন্নেসা। তিনি ৪নং সেক্টরে যুদ্ধ করেন। তাঁর পদবি ছিল সিপাহি । তিনি ১৯৭১ সালের ২৮ অক্টোবরে মৃত্যুবরণ করেন ।

উপসংহার : পরিবেশ বলা যায় যে, বীরশ্রেষ্ঠরা ছিলেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান । তাঁরা জীবনবাজি রেখে পাকিস্তানি সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন। অন্যায়, অত্যাচার ও শোষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে বীরশ্রেষ্ঠরা মুক্তিযুদ্ধে বাংলার সব স্তরের লোকেরা অবদান রাখেন।

সাতজন বীরশ্রেষ্ঠের নাম বাঙালি জাতির ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবে। বাংলাদেশ ত্রিশ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে স্বাধীন হয়। বীরশ্রেষ্ঠরা প্রত্যেকে নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রেখেছিলেন। যতদিন বাংলাদেশের মানুষ থাকবে ততদিন তাঁদের নাম বাঙালির হৃদয়ে লেখা থাকবে ।

Rk Raihan

আমি আরকে রায়হান। আমাদের টার্গেট হল ইন্টারনেটকে শেখার জায়গা বানানো। আরকে রায়হান বিশ্বাস করেন যে জ্ঞান শুধুমাত্র শেয়ার করার জন্য তাই কেউ যদি প্রযুক্তি সম্পর্কে কিছু জানে এবং শেয়ার করতে চায় তাহলে আরকে রায়হান পরিবার তাকে সর্বদা স্বাগত জানানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *